করোনা সংক্রামক রোধে কঠোর অভিযান চালাচ্ছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন বন্ধ হচ্ছে মার্কেট

এনাম রহমান, সিলেট প্রতিনিধি:  সিলেটে করোনা ভাইরাস সংক্রামন ভয়বহ আকার ধারণ করায় ইতো মধ্যে সিলেট বিভাগকে রেডজোনে ভাগ করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এই মুহুর্তে নগরবাসীকে করোনা সংক্রমন থেকে রক্ষা করতে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাহী ম্যাজিসেট্রট সহ অভিযানে নেমেছেন।

মঙ্গলবার (৯ জুন) সকাল ১০টা থেকে র‌্যাব, পুলিশ ফোর্স, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের নিয়ে নিজে করোনায় আক্রান্ত হবার ঝুকিকে উপেক্ষা করে মাঠে নামেন মেয়র আরিফ।

স্বাস্থ্য বিধি না মেনে দোকান পাট খোলা রাখায় করোনা সংক্রামন মহানগরে বেড়েই চলছে। এ অবস্থায় মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী হাসান মার্কেট, বন্দরবাজার, লালদিঘির হকার্স মার্কেট, মহাজনপট্টি, লালবাজার, সিটি মার্কেটসহ বিভিন্ন মার্কেটে গিয়ে হাত জোড় করে ব্যবসায়ীদের দোকান পাট বন্ধ রাখতে অনুরোধ করেন।

লাল দিঘীর পার হকার মার্কেট মেয়র নিজে উপস্থিত থেকে বন্ধ করান। হাসান মার্কেটসহ অন্যান্য মার্কেটের ব্যবসায়ীরা দোকান পাট বন্ধ রাখবেন বলে মেয়রকে কথা দেন। এ সময় মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বেশ কিছু দোকানে নির্বাহী ম্যাজিসেট্রটের মাধ্যমে নগদ অর্থ দন্ড করা হয়।

সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বলেন, আজ আমারা দোকানে দোকানে গিয়ে অনুরোধ করছি। এবং লালদিঘির হকার্স মার্কেটে ও হাসান মার্কেটে আমরা কঠোর অবস্থান নিয়ে মার্কেট এক সাপ্তাহের জন্য শীলগালা করেছি এতে ব্যবসায়ীরাও সহযোগিতা করছেন।

তিনি বলেন নিয়মনীতি কেউ ভঙ্গ করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। মেয়র বলেন প্রয়োজনে আমি ১৫ দিন রাস্তায় থাকবো। অভিযানে মেয়রের সাথে রয়েছেন প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. জাহিদুল ইসলামসহ সিসিকের প্রত্যেক বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগন। দুপুর ১ টায় সর্বশেষ পাওয়া খবরে জানা গেছে মেয়রের এই অভিযান তখনও চলছিলো।