করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি অবস্থা জারি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। স্থানীয় সময় শুক্রবার (১৩ মার্চ) হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘোষণা দেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে দেওয়া বক্তব্যে ট্রাম্প বলেন, করোনা ভাইরাসের ফলে জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। ফলে আনুষ্ঠানিকভাবে আমি জাতীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করছি। একদিন এই মহামারির অবসান ঘটবে।
এ সময় ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকাতে ৫০ বিলিয়ন ডলারের সহায়তা তহবিলের ঘোষণা দেন তিনি।
এর আগে গত ১১ মার্চ হোয়াইট হাউস থেকে জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ইউরোপ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণের ক্ষেত্রে নতুন বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণা দেন ট্রাম্প। ভাষণে তিনি বলেছেন, আগামী ৩০ দিনের জন্য ইউরোপ থেকে সব ধরনের ভ্রমণ স্থগিত থাকবে। তবে এটি যুক্তরাজ্যের জন্য প্রযোজ্য হবে না।
এদিকে করোনাভাইরাসে বিশ্বের ১২৩টি দেশে মৃতের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে। যুক্তরাজ্যে মারা গেছেন আরও এক বাংলাদেশি। ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে, চেক প্রজাতন্ত্র, নরওয়ে পোল্যান্ড, ডেনমার্ক, অস্ট্রিয়া, তুরস্ক, পাকিস্তান ও হংকংয়ে সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।