করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে লিফলেট বিতরন

সোহেল রানা, শেরপুর জেলা প্রতিনিধি: কোভিট-১৯ করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে শেরপুরে “করোনা ভাইরাস আতংক নয়, প্রতিরোধে সচেতন হই ” শীর্ষক লিফলেট বিতরন করা হয়েছে।

শুক্রবার (২০মার্চ) জুম্মা নামাজের পর জেলার বিভিন্ন মসজিদ ও জেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে একযোগে দেড় লক্ষাধিক লিফলেট বিতরন করে শেরপুর জেলা পুলিশ ।

জেলার মসজিদ ও গুরুত্বপূর্ণ স্থান সমুহের সামনে লাগানো হয়েছে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও করনীয় তথ্য মুলক ব্যানার।

করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম পিপিএম। করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাবার জন্য আপাতত সচেতনতা এবং পরিষ্কার-পরিছন্নতার কোনও বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।

পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম বলেন, বর্তমানে করোনা ভাইরাসকে ঘিরে নানা রকম তত্ত¡ বেরিয়েছে যার অধিকাংশই সত্য নয়। এই ভয়ঙ্কর দুর্যোগের সময় অনেকে ব্যবসায়িক চিন্তা বা ইউটিউবে নানা রকম নাম দিয়ে মিথ্যা বা মনগড়া তথ্য প্রদান করছেন যার অনেকগুলোই ভিত্তিহীন।

তিনি বলেন, সবার উচিত নিজে সচেতন হওয়া এবং অন্যকে সচেতন করা। তাহলে নিজে যেমন নিরাপদ থাকা যাবে, তেমনি অন্যকেও ভাল রাখা যাবে।

পুলিশ সুপার আরো বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণের লক্ষণ হল শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া, প্রচন্ড জ্বর, গলা ব্যাথা ও শুকনো কাশি হওয়া।

এই ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে আতঙ্কিত না হয়ে নিজেকে ও পরিবারকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন। বারবার হাত পরিস্কার করুন, বাইরে গেলে মাস্ক পরে নিন, হাত দিয়ে নাক-মুখ স্পর্শ না করারও তাগিদ দেন তিনি।

কাজী আশরাফুল আজীম বলেন, জেলা পুলিশ সবসময় শেরপুরের মানুষের সাথে আছে। তাই সচেতনতার আজ জেলায় বিভিন্ন মসজিদ ও জেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে একযোগে দেড় লক্ষাধিক লিফলেট বিতরন করছে জেলা পুলিশ।

মসজিদের সামনে লাগানো হয়েছে সচেতনার ব্যানার। বিদেশ ফেরত সকলকে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতেও বলেছেন তিনি, হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসীদের নজরদারি জোরদারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে জেলার ৫ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহ সংশ্লিষ্টদের।

এর পাশাপাশি বিশেষ প্রয়োজন ব্যাতিত সকলকে নিজ নিজ ঘরে অবস্থানের জন্যও অনুরোধ করেছেন।

শেরপুরের মানুষ যেন আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হয়, এজন্যই এমন উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।