করোনা প্রতিরোধে সফল মালয়েশিয়ার লকডাউনে দিনে ক্ষতি ২ বিলিয়ন – প্রধানমন্ত্রী

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি: করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় আমরা এখন সফল। তার মানে এই নয় আমরা পুরোপুরি বিপদমুক্ত আছি। সরকারী ও পাবলিক ক্লাস্টারে ভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কা এখনো রয়েই গেছে। তাই সরকার চিন্তাভাবনা করছে এসব স্থানে মাস্ক পরিধান করা বাধ্যতামূলক করা হতে পারে।

কোভিট-১৯ সংক্রমন কয়েক সপ্তহ ধরে নিয়ন্ত্রণে থাকলেও কয়েক দিন এটা সামান্য বেড়েছে। তাই সবাই কে এখনো সচেতন সচেতন থাকতে হবে। এমন যেন আর না হয় পূনরায় লকডাউন আরোপ করতে হবে। আজ সোমবার(২০ জুলাই) বিকাল ৪ টায় জাতীয় সংসদ থেকে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি সম্পর্কে জাতির উদ্দেশ্য এক ভাষনে এসব কথা বলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তান শ্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন। তিনি এসময় বলেন, আমরা টানা তিন মাস লকডাউনে গৃহবন্দী ছিলাম আমরা। প্রতিদিন সরকারের ক্ষতি ২ বিলিয়ন রিংগিত।

সরকারী বেসরকারি সব সেক্টর বন্ধ হয়ে গেছে, ফ্যাক্টরি কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে, লোকজনেরা বেকার হয়ে পড়েছে, সরকারের অর্থনীতি বড় ধাক্কা খেয়েছে। আবার যদি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার ফিরিয়ে আনতে হয় তাহলে আমরা বড় ধরনের অর্থনীতির মন্দার কবলে পড়ে জিডিপি কমে যাবে। লোকজন বেকার হয়ে পড়বে। বর্তমানে ৫.৩ শতাংশে বেকারত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে।

আমরা করোনা জয় করেছি বলে নয় আমাদের সকলকে করোনা স্বাস্থ্যবিধি, সামাজিক দূরত্ব,ক্লাস্টার এড়িয়ে চলা, সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন, শিশু ও বৃদ্ধদের দক্ষিণ এশিয়ার আইকন হিসেবে মালয়েশিয়া কোভিড-১৯ প্রাদূ্রভাব নিয়ন্ত্রণে ব্যাপক সফলতা অর্জন করে প্রশংসিত হয়েছে দেশটি।