করোনা পরিস্থিতিতে শেরপুরের অসহায়দের পাশে দুলাল হাজী

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বিশ্ববাসী ঘরবন্দী রয়েছেন। বাংলাদেশেও ঘরবন্দী রয়েছেন মানুষেরা। এতে করে দেশের নিম্ন আয়ের মানুষরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। করোনা পরিস্থিতিতে বিপাকে পড়েছে নিম্ন আয়ের অসহায় মানুষ। দিনভর খাবারের সন্ধানে থাকাই এখন তাদের মূল যুদ্ধ। সাংগঠনিকভাবে নানা উদ্যোগ থাকলেও ব্যক্তি উদ্যোগে খুব কম মানুষই তাদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আর এ সময়ে নিম্ন আয়ের এ মানুষগুলোকে সহযোগিতা করছেন বিত্তবানরা।

এর মধ্যে একজন ব্যবসায়ী আলহাজ্ব দুলাল উদ্দিন। নিজের ব্যবসার পাশাপাশি জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক তিনি। প্রথম রোজা থেকেই অসহায় এবং দুস্থ মানুষদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করেছেন তিনি। ১৫ রমজান পর্যন্ত অন্তত দুই হাজার মানুষের মধ্যে চাল, খাবার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন তিনি। এছাড়া প্রতিবেশি ও নিজ আত্মীয়ের মধ্যে যারা করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়েছেন তাদের জন্যও পাঠিয়েছেন এই খাদ্য সহায়তা।

ব্যবসায়ী আলহাজ্ব দুলাল উদ্দিন তার এই কার্যক্রমমে শহরের নবীনগর ও ভাতশালা এলাকায় তিন ধাপে এই খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন। প্রথমদিন জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিক এমপি এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এসময় জেলা আ’লীগের নেতৃবৃন্দ ও তার পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এই কার্যক্রম সম্পর্কে ব্যবসায়ী আলহাজ্ব দুলাল উদ্দিনের ছোট ছেলে সোহেল রানা বলেন, দেশের যেকোন দূর্যোগ মুহূর্তে আমাদের পরিবার সকলের পাশে দাঁড়ায়। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে আমার বাবা এবারো অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। ইতোমধ্যে দুই হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে। এটি চলমান থাকবে।