করোনা আক্রান্তদের সব চিকিৎসা হবে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে

এম এ বাশার, কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লায় করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালকে সুনির্দিষ্ট হাসপাতাল হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে। সেখানে করোনা আক্রান্তদের সব চিকিৎসা হবে। সোমবার দুপুরে কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে করোনা ভাইরাস (কভিড-১৯) প্রতিরোধের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত জেলা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা-৬ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আ.ক.ম. বাহাউদ্দিন বাহার। সভায় সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মোঃ আবুল ফজল মীর । উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মুজিবুর রহমান, কুমিল্লার সিভিল সার্জন ডা. মো: নিয়ামুজ্জামান, বিএমএ কুমিল্লা জেলার সভাপতি ডা; আব্দুল বাকি আনিস, সাধারণ সম্পাদক ডা; আতাউর রহমান জসিম ও স্বাচিপের সাধারণ সম্পাদক ডা. মোরশেদুল আলম, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. শাহাদাত হোসেন, সংক্রমণ প্রতিরোধে জেলা সমন্বয়ক ডা. নিসর্গ মেরাজ চৌধুরী, ক্লিনিক মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ। রুদ্ধদ্বার এ সভার পরে সাংবাদিকদের ব্রিফ করে কুমিল্লা-৬ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আ.ক.ম. বাহাউদ্দিন বাহার। সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়- করোনা (কভিড-১৯) আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালকে সুনির্দিষ্ট হাসপাতাল হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে।

সেখানেই আইসিইউএর ব্যবস্থা হচ্ছে। এ হাসপাতালের যাঁরা রোগী আছেন তাঁদেরকে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে নেওয়া হবে। সেখানে গাইনী, ক্যাজুয়েলটি ও বহি: বিভাগের রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হবে। অন্য বিভাগের রোগীদের বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে সরকারি নিয়মে চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

সিভিল সার্জন অফিস এসব রোগীদের রেফার করবেন। সে রোগীরা সরকার নির্ধারিত ফি অনুযায়ি চিকিৎসা চিকিৎসা নিতে পারবেন। সিভিল সার্জন, কুমেক হাসপাতালের পরিচালক, বিএমএ ও স্বাচিপের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এর সমন্বয় করবেন। ফলে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন সেন্টার আর হচ্ছে না, প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোতে কোন করোনা আক্রান্ত রোগীকে আইসিইউতে নেওয়া হবে না। কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ২৭ ওয়ার্ডের জনগণের নমুনা সংগ্রহ সিটি করপোরেশনই করবে। তাদেরকে ২জন টেকনোলজিষ্ট দিয়ে সহায়তা করবে সিভিল সার্জন অফিস।