করোনার প্রভাবে এবার পিছিয়ে গেল আইপিএল

বিশ্বজুড়ে মহামারী রূপ ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। যার প্রভাব পড়েছে বিশ্ব ক্রিকেটেও। ক্রিকেটের অনেক সূচি বদলে গেছে। বাতিল হয়ে গেছে অনেক ম্যাচ। এর মাঝেই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) এ করোনার প্রভাব দেখা দিলো। পিছিয়ে গেল আইপিএল।
পূর্ব নির্ধারিত সূচিতে ২৯ মার্চ থেকে এবারের আসর শুরুর কথা ছিলো। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে আইপিএলের ১৩তম আসর পেছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইপিএলের গভর্নিং কাউন্সিল।
নতুন সূচিতে প্রায় আড়াই সপ্তাহ (১৭ দিন) পিছিয়ে ১৫ এপ্রিল থেকে শুরু হবে আইপিএলের এবারের আসর।
জানা গেছে, আইপিএলের এবারের আসরের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করতে আজ (শনিবার) জরুরি বৈঠকে বসবে টুর্নামেন্টের গভর্নিং কাউন্সিল। ফলে সবার অপেক্ষা এই বৈঠকের।
এদিকে, জনপ্রিয় ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ইএসপিন ক্রিকইনফো জানিয়েছে, বৈঠক হয়ে গেছে কালই। যেখানে গভর্নিং কাউন্সিলের বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি এবং সেক্রেটারি জয় শাহ উপস্থিত ছিলেন। তাদের বৈঠকে আলোচনা হয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দেয়া নির্দেশনা নিয়েও।
এছাড়া সবকিছু বিবেচনা করেই আইপিএলের এবারের আসর ১৭ দিন পেছানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ সিদ্ধান্ত জানিয়ে অংশগ্রহণকারী ৮ দলকে চিঠি দেয়া হয়েছে গতকাল (শুক্রবার)। আজ শনিবার এ বিষয়ে বিস্তারিত বর্ণনা করা হবে বলে জানায় আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল।
গতকাল (বৃহস্পতিবার) ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা দাম্মু রবি জানান, আয়োজকরা চাইলে যথাসময়েই আইপিএল শুরু করতে পারেন। এক্ষেত্রে কোনো নিষেধাজ্ঞা দেবে না ভারত সরকার। তার এমন কথায় আশা জেগেছিল, নির্ধারিত সময়েই আইপিএল শুরুর।
কিন্তু পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ বার্তা দেয়া হলেও সমস্যা রয়েছে অন্য জায়গায়। আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ভিসা বাতিল করে দিয়েছে ভারত। যার ফলে আইপিএল খেলার জন্য বিদেশি ক্রিকেটারদের ভারত ভ্রমণ পড়ে গিয়েছিল সংশয়ে। ধারণা করা হচ্ছে, এ কারণেই মূলত পিছিয়ে নেয়া হয়েছে আইপিএল।