করোনার টিকা নিয়ে গুজব না ছড়ানোর অনুরোধ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

রাজধানীর ৫টি হাসপাতালে করোনা টিকাদান কার্যক্রম চলছে। হাসপাতালগুলো হলো, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ও কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী কার্যক্রম পরিদর্শনে গিয়ে জানান, আগে টিকা গ্রহণকারীরা সুস্থ আছেন। এসময় টিকা নিয়ে কোনো গুজব না ছড়ানোর অনুরোধ জানান মন্ত্রী। সব মিলিয়ে এই পাঁচ হাসপাতালে আজ মোট ৫৬০ জনকে করোনার টিকা দেয়া হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, পৃথিবীতে যত টিকা আবিষ্কার হয়েছে, তার মধ্যে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিড-১৯ টিকা সবচেয়ে নিরাপদ। এই টিকায় কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।
তিনি আরও বলেন, আপনারা নির্ভয়ে টিকা নেন। টিকা পরবর্তী যা করণীয়, তা করা হবে। আপনারা ভয় পাবেন না। ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদের একজন সদস্য টিকা নিয়েছেন, স্বাস্থ্য সচিবও টিকা নিয়েছেন। টিকা যারা নিয়েছেন তারা ভালো ও সুস্থ আছেন। তাদের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়নি।
দিনের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভ্যাকসিন নিয়ে কার্যক্রম শুরু করেন প্রতিষ্ঠানটির উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। পরে মন্ত্রী পরিষদের প্রথম সদস্য হিসেবে টিকা নেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদ পলক। এরপর বেলা ১১টায় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আব্দুল মান্নান ও তথ্য সচিব খাজা মিয়া টিকা নেন।