করোনাভাইরাসের কারণে ঠাকুরগাঁওয়ে বাসন্তীপুজা স্থগিত

জয় মহন্ত অলক, ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁওয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের আরো একটি উৎসব বাসন্তি পুজা। আনন্দমুখর পরিবেশে পালন করার কথা ছিলো এ বাসন্তী পুজা। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে তা স্থগিত করা হয়েছে। ৩০ মার্চ সোমবার ষষ্ঠীপুজার মধ্য দিয়ে শুরু হতো এ বাসন্তিপুজা।

প্রতিবছর শহরের কেন্দ্রীয় গোবিন্দনগর মন্দিরসহ বেশকটি মন্দিরে এ পুজার আয়োজন করা হয়। পুজা উপলক্ষে মন্দির প্রাঙ্গনে বসে গ্রামীন ঐতিহ্যবাহি মেলা। আগামী ৩ এপ্রিল প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হতো এ উৎসব।

গোবিন্দনগর মন্দিরের পুরোহিত সাধন চক্রবর্তী জানান, ৩৮ বছর ধরে এ মন্দিরে মা বাসন্তীর পূজা হয়ে আসছে। বাসন্তী পুজা এখন দূর্গা পুজার ন্যায় সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। কিন্তু এবার করোনাভাইরাসের কারণে পুজা করা সম্ভব হচ্ছে না।

এদিকে দেবী বাসন্তির মূর্তি তৈরি করে বিপদে পড়েছে ঠাকুরগাঁয়ের মৃৎ শিল্পীরা। প্রতিমা কারিগররা কাদা-মাটি, বাঁশ, খড়, সুতলি দিয়ে শৈল্পিক ছোঁয়ায় তিলতিল করে গড়ে তুলেছেন দেবী বাসন্তির প্রতিমা।

কেউ কেউ প্রতিমার গায়ে রঙ তুলির আঁচড় দিয়ে দৃষ্টিনন্দন প্রতিমাও প্রস্তুত করে ফেলেছিলো, কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে পুজা স্থগিত হয়ে যাওয়ায় এখন তাদের মাথায় হাত।

বাংলাদেশ পুজা উপজাপন পরিষদ এর ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তপন কুমার ঘোষ বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক বাসন্তি পুজাসহ সকল পুজা স্থগিত রাখা হয়েছে। কেন্দ্র হতে পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত সকল ধরণের ধর্মীয় অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে।