করোনা আতঙ্কে ঢাকা ছাড়ছেন নগরবাসী

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ঢাকা থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যেতে শুরু করেছেন নগরবাসী। এ কারণে রাজধানীর বাসা-বাড়ি ও রাস্তাঘাট অনেকটাই ফাঁকা হতে শুরু করেছে।

পরিবহন চালক ও ব্যবসায়ীদের দাবি, করোনা আতঙ্কে লোকজন বাইরে বের হন অনেক কম। এর প্রভাব পড়ছে সব জায়গাতেই। করোনা ভাইরাসের ব্যাপক ছড়িয়ে পড়া রোধে জনসমাগম এড়িয়ে, পরিচ্ছন্নতার বিধি মেনে চলার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের। অন্য সময় কর্মব্যস্ত দিনে ঢাকার এ রাস্তা যানজটে অনেকটাই স্থবির থাকলেও কয়েকদিন বেশ ফাঁকা।

ফার্মগেটসহ জনবহুল এলাকায় চিরচেনা রূপ নেই বললেই চলে। গণপরিবহনগুলো তাই দীর্ঘসময় অপেক্ষা করে যাত্রী পেতে। তারা বলেন, সবাই চলে যাচ্ছে। যাত্রী নেই। মানুষ ভাইরাস থেকে বাঁচতে চাচ্ছে।

শহর ছাড়ার দৃশ্যও চোখে পড়ে বিভিন্ন স্টেশনে। কেউ সপরিবারে, কেউ শুধু পরিবারের অন্য সদস্যদের পাঠিয়ে দিচ্ছেন গ্রামের বাড়িতে। তারা বলেন, স্কুল-কলেজ বন্ধ। বাসায় থাকতে বলা হয়েছে। তাই বাড়ি চলে যাচ্ছি। ওখানেই নিজেকে নিরাপদ মনে হচ্ছে।

জনগণের এ যাওয়া-আসা গতানুগতিক হলেও এবার ভিন্নরকম সচেতনতার তাগিদ চিকিৎসকদের। প্রয়োজনে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা নিয়ে হলেও করোনা প্রতিরোধে ভূমিকা রাখার কথা বলছেন তারা।

রাজধানীর তুলনায় গ্রামে চিকিৎসার সুযোগ কম। তাই করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বেশি থাকায় বেড়াতে যাওয়া নগরবাসীর পাশাপাশি স্বজনদেরও সচেতন হওয়া প্রয়োজন।