এল ক্লাসিকোতে বার্সেলোনার প্রতিপক্ষ রিয়াল মাদ্রিদ

আজ মাঠে গড়াবে ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে উত্তাপ ছড়ানো ম্যাচ এল ক্লাসিকো। ন্যু ক্যাম্পে রাতে লড়বে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়।

এল ক্লাসিকো, শব্দটি ফুটবল প্রেমিদের মনে কাঁপন ধরায়, শিহরণ জাগায়। তর্ক সাপেক্ষে ক্লাব ফুটবলের সব চাইতে বড় ম্যাচ। হবে না কেন? শুধু স্পেনের না, রিয়াল-বার্সাতো সেরা দুই ক্লাব। একদিকে মেসি-সুয়ারেজ-গ্রিজম্যান তো অন্যদিকে বেল-বেনজেমা-রামোস। কে জিতবে কে হারবে, নাকি লিগ টেবিলের মত সমতায় থেকেই শেষ হবে ক্লাসিকো, উত্তর মেলাবে ভালভার্দের ট্যাকটিক্স নাকি জিদানের মাস্টারস্ট্রোক।

বার্সেলোনা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে বলেন, ক্লাসিকো সব সময় উত্তাপ ছড়ায়। এবার তো দুই দলের পয়েন্টও সমান। যে-ই জিতবে ৩ পয়েন্ট এগিয়ে যাবে। মৌসুমের অনেকটা বাকি থাকলেও শেষদিকে তা কাজে আসবে।

রিয়াল মাদ্রিদ কোচ বলেন, কাদের সাথে খেলছি আমরা জানি। গেল কয়েক বছর ধরেই বার্সেলোনা ধারাবাহিক পারফর্ম করছে, ওদের মেসির মত খেলোয়াড় আছে। তবে আমাদেরও অস্ত্রের কমতি নাই।

দুই দলেই আছে ইনজুরি সমস্যা। রিয়ালে হ্যাজার্ড, মার্সেলো, হামেস রদ্রিগেজের আছে ইনজুরি। আর মৌসুমের শুরু থেকেই মাঠের বাইরে আসেনসিও। বেনজেমা খেলছেন নিশ্চিত। ইস্কো-ভিনসিয়াস জুনিয়র-রদ্রিগো আছেন। তবে জিদানের সাথে যতই ঝামেলা থাকুক অভিজ্ঞতার খাতিরে সুযোগ মিলতেই পারে গ্যারেথ বেলের।

বার্সেলোনা পাচ্ছে না দুই তুরুপের তাস উসমান ডেম্বেলে আর আর্থার মেলোকে। ফ্রন্টলাইনে মেসি-সুয়ারেজের সঙ্গী তাই আঁতোয়ান গ্রিজম্যান। মাঝমাঠে বুসকেটস আর ডি ইয়ং নিশ্চিত। রাকিতিচ আর ভিদাল থেকে সুযোগ পাবেন একজনই। ডিফেন্সে সমস্যা নাই। ইনজুরি কাটিয়ে এই ম্যাচ দিয়েই ফিরছেন আলবা।

রিয়াল-বার্সা সব সময়ই সমান-সমান। এবার তো পয়েন্ট টেবিলেও দুই দলের সাম্যাবস্থা। একে অপরকে ছাপিয়ে যাওয়ার লড়াইটা তাই না জমে পারেই না।