এই প্রথম লালপুরের মেয়ে ৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডার

সাজেদুর রহমান, নাটোর প্রতিনিধিঃ লালপুর উপজেলার এক প্রত্যন্ত গ্রামের মেয়ে মোসাঃ আরজিনা খাতুন। এবার ৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়ে পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদে যোগ দিতে যাচ্ছেন।

লালপুর উপজেলার বেরিলাবাড়ি গ্রামে জন্ম নেওয়া আরজিনা দুই ভাইবোনের পরিবারে বড় মেয়ে।

মোঃ উসমান গণি ও মোসাঃ আসমা বেগমের প্রথম এই সন্তান উপজেলার চন্ডিপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও রাজশাহীর নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন। পরে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

এবিষয়ে আরজিনা খাতুন বলেন, ছোটবেলা থেকেই দেখে আসছি পুলিশকে দেখে সবাই ভয় পায়, পুলিশদের সম্পর্কে নেগেটিভ একটা ধারণা থাকে। পুলিশ দেখলে কি হয় না হয়, ঝামেলা এড়াতে মানুষ ১০ হাত দূরে থাকে। এটা যেন আর না থাকে। এজন্যেই স্বপ্ন দেখতাম পুলিশ অফিসার হবো। যার ফল ৩৮তম বিসিএসের মাধ্যমে আমার বহু আকাঙিক্ষত স্বপ্ন আমার কাছে ধরা দেয়। পুলিশ ক্যাডেট ই আমার ফার্স্ট চয়েজ ছিল, আলহামদুল্লিাহ আমি সেটাই পেয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমি চাই পুলিশ সবসময় মানুষকে সাহায্যের জন্য প্রস্তুত এমন একটা মনোভাব মানুষের মনে তৈরি হোক। তৈরি হোক দূর্নীতি মুক্ত দেশ। আর এমন একটি দূর্নীতি মুক্ত দেশ গঠনে ভূমিকা রাখতে চাই।

এছাড়া আমার এলাকাটা এখনো তুলনামূলক পিছিয়ে আছে, তাই এলাকার উন্নয়নে পাশে থেকে কাজ করতে চাই। সবাই আমার জন্যে দোয়া করবেন যেন চাকরিতে যোগ দিয়ে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে পারি।