উল্লাপাড়ায় পৌর মেয়র নির্বাচনে আঃলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ৪ প্রার্থী

মো: আলমগীর, উল্লাপাড়া প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া পৌরসভা নির্বাচনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে দেশের সব পৌরসভায় সাধারণ নির্বাচনের উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিতে ইসি সচিবালয়কে নির্দেশনা দিয়েছে কমিশন। সম্প্রতি কমিশনের এক সভায় এ নির্দেশনা দেয়া হয়। সভায় ডিসেম্বরে পৌরসভার নির্বাচন আয়োজনে নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া পৌরসভা নির্বাচন এখনো প্রায় তিন মাস বাকি। এখনই নির্বাচনকে ঘিরে আলোচনা মুখর হয়ে উঠেছে পাড়া-মহল্লা। আলোচনার ঝড় বইছে চায়ের দোকান ও রেস্টুরেন্টে। বর্তমান পৌর মেয়রসহ ৪ জন প্রার্থী এবার পৌরসভা নির্বাচনে মনোনায়ন চাচ্ছেন। কে হবেন পৌর মেয়র। পৌর নির্বাচন কেমন হবে।
করোনা পরিস্থিতিতে সাধারণ ভোটাররা কি এবার ভোট কেন্দ্রে আসবেন। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে মানা হবে কি স্বাস্থ্যবিধি। এ রকম নানা প্রশ্ন সাধারণ মানুষের। উল্লাপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ক্ষমতাশীন দলের মনোনায়ন চাচ্ছেন চারজন। এরা হলেন হলেন, বর্তমান পৌর মেয়র ও পৌর আঃলীগের সভাপতি এসএম নজরুল ইসলাম,পৌর আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক বর্তমান পৌর কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র আমিরুল ইসলাম আরজু,উপজেলা আঃলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুব সারোয়ার বকুল,উপজেলা আঃলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য জাহিদুজ্জামান কাকন। উল্লাপাড়া পৌরসভার বর্তমান মেয়র এসএম নজরুল ইসলাম বলেন, আমি নৌকা প্রতীক নিয়ে মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর উল্লাপাড়া পৌরসভাকে ৫০ বছর এগিয়ে নিয়েছি।
বদলে দেয়া হয়েছে রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট। রোড লাইটের মাধ্যমে পৌরসভাকে আলোকিত করা হয়েছে। পৌর এলাকার অবহেলিত মানুষের জন্য তাদের বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতাসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দেয়া হয়েছে।আওয়ামী লীগ থেকে এবারেও দলীয় মনোনায়ন পাবেন বলে আশা প্রকাশ করে পৌর মেয়র এস এম নজরুল ইসলাম বলেন, আমি পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হলে পৌরসভার বাকি উন্নয়নমূলক কাজগুলো বাস্তবায়নের চেষ্টা করবো। উল্লাপাড়া পৌর আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্যানেল মেয়র আমিরুল ইসলাম আরজু জানান, জননেতা তানভীর ইমামের ওপর আস্থা ও জনগণ কে সাথে নিয়ে পৌর নির্বাচনে আঃলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি। জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় তাহলে উল্লাপাড়া পৌরসভা কে একটি শান্তির নগরী হিসেবে গড়ে তুলবো।
তিনি আরো জানান, উল্লাপাড়া পৌরসভা হবে সন্ত্রাস,দূর্ণীতি,মাদকমুক্ত,একটি জবাবদিহিতা মুলক পৌরসভা। দীর্ঘ ১০ বছর পৌর কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র হিসেবে থাকা প্রভাবশালী এই আঃলীগ নেতা আমিরুল ইসলাম আরজু আরো জানান জনগণ আমার সাথে আছে, আমার সবচেয়ে বড় শক্তি জনগণের ভালোবাসা,আমি দল থেকে মনোনয়ন পেলে জনগণের ভোটে বিজয় সুনিশ্চিত করব ইনশাআল্লাহ। উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুব সারোয়ার বকুল মেয়র নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়াও উল্লাপাড়া উপজেলা আঃলীগের সদস্য জাহিদুজ্জামান কাকন মেয়র পদে প্রার্থী হিসেবে বিভিন্ন এলাকায় প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে।
আঃলীগের মেয়র প্রার্থীরা সারাদিন পৌর এলাকার প্রতিটি ওয়ার্ড,পাড়া-মহল্লা,রাস্তাঘাট,হাটবাজার চোষে বেড়ালেও মেয়র পদে বিএনপির সম্ভব্য কোন প্রার্থী এখনো মাঠে দেখা যায়নি। এ বিষয়ে উল্লাপাড়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল ওহাব জানান পৌর মেয়র নির্বাচনে আমরা দলীয়ভাবে কোন সিন্ধান্ত পাইনি তাই আমাদের প্রার্থীরা মাঠে নামেনি। দলীয় সিন্ধান্ত হলেই বিএনপি প্রার্থীরা মাঠে নামবে। উল্লাপাড়া পৌর সভায় প্রায় ৩৫ হাজার ভোটার। পৌর এলাকার জনসাধারণ জানিয়েছেন আগামী নির্বাচনে পৌর মেয়র যেই হোক, পৌর এলাকায় পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা,ময়লা আবর্জনা পরিস্কার, সঠিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা, ডেঙ্গু প্রতিরোধক ব্যবস্থা,দূর্নীতি মুক্ত এবং একটি জবাবদিহিতা মুলক পৌরসভা দেখতে চায়। পৌর এলাকার সাধারণ জনসাধারণ মনে করে আগামী নির্বাচনে সৎ এবং যোগ্য প্রার্থীকেই ভোট দিবে।