উল্লাপাড়া থানাকে আধুনিক ও মডেল থানা গড়তে কাজ করে যাচ্ছেন ওসি দীপক কুমার দাস

মোঃ আলমগীর হোসেন, উল্লাপাড়া,সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ পুলিশ কর্মকর্তাদের পেশাগত জীবনে নানা বৈচিত্র ও অভিজ্ঞতায় ভরা। পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে তাদেরকে অনেক বাস্তব ঘটনার মুখোমুখি হতে হয়। নিজেদের প্রজ্ঞা ও পেশাদারিত্বের মাধ্যমে পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করতে হয়।

আবার অনেক ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ গ্রহন করতে হয় বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে। তবে আদর্শ আর নীতি নৈতিকতা বজায় রেখে বর্তমান সময় অতিবাহিত করা অনেক কঠিন। তারপরও সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া থানার চৌকস পুলিশ অফিসার ইনচার্জ দীপক কুমার দাস দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে সক্ষম হয়েছেন। যোগদানের একবছর পেরিয়ে তিনি থানা এলাকার সর্বশ্রেনী পেশার মানুষের আস্থা অর্জন করেছেন।

২০২০ সালের ১৯ মার্চে উল্লাপাড়া থানায় যোগদানের পর থানা এলাকার সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, দালালমুক্ত ও তদবীরবাজ মুক্ত করে থানাকে মডেল ও মানবিক থানা হিসেবে গড়তে সক্ষম হয়েছেন। যোগদানের পর হতে উল্লাপাড়া থানা এলাকার সাধারণ মানুষ অহেতুক হয়রানীর হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। অপরদিকে তিনি যোগদানের পরে আইন শৃংখলা স্বাভাবিক রাখতে থানা পুলিশদের মাধ্যমে সেবা দিয়ে চলেছেন নিরলস ভাবে।

তিনি মানবিক থানা, দালালমুক্ত থানা, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদমুক্ত থানা গড়ার অভিপ্রায়ে দিন রাত কাজ করছেন। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ, মাদকের সাথে জড়িতদের আটক, আইন-শৃংখলা রক্ষা, অপরাধ দমন, অপরাধীদের প্রেফতার, মামলা গ্রহণের বিষয়ে সার্বক্ষনিক নজরদারি, সড়ক পথে শৃঙ্খলা রক্ষা, অসহায় মানুষের পাশে থেকে জনবান্ধব পুলিশিং ব্যবস্থা গড়ে তোলার নজির গড়েছেন। মহামারি করোনা কালিন সময়ে থানা এলাকায় জনসচেতনাতা মুলক কর্মকান্ড, করোনায় মৃত ব্যক্তিদের লাশ দাফন, শীতবস্ত্র বিতরন, আইন প্রয়োগ ও ন্যায় বিচার ও সুশাসনেও দৃষ্টান্ত স্থাপন করে আসছেন।

থানার সার্বিক অবকাঠামো উন্নয়নে ওসি দীপক কুমার দাস এর কর্মকান্ড সম্পর্কে জানতে চাইলে আবুল বাশার সরকার বলেন, আমার দেখা মতে দীপক কুমার একজন সৎ, মানবিক, নিষ্টাবান ও দূর্নীতি বহির্ভূত পুলিশ কর্মকর্তা। তিনি যোগদানের পর উল্লাপাড়া থানার চেহারা পাল্টে গেছে। ওসি সাহেব ইতিমধ্যে উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ডে এলাকার মানুষের কাজে মানবিক ওসি হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে।

করোনাকালীন সময় তার ভূমিকা প্রশংসনীয় ছিলো থানার সার্বিক উন্নয়নের বিষয় জানতে চাইলে ওসি দীপক কুমার বলেন, সংসদ সদস্য ও স্থানীয় প্রশাসন এর সহযোগীতায় থানার অবকাঠামো উন্নয়ন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে থানার অফিসার ও ফোর্সদের জন্য ঔষধ,

কাগজ কলম, রেজিষ্ঠার খাতা, ফটোষ্ট্যাট ও প্রিন্টিারের কালি ক্রয়, বিট পুলিশিং কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষে ব্যানার, ফেস্টুর, রেজিষ্টার, স্ব-স্ব ইউনিয়ন পরিষদে বিট পুলিশিং অফিস উদ্বোধন করা হয়েছে। তাছাড়া থানাকে দালালমুক্ত করাসহ মানুষের সেবায় সব সময় কাজ করে যাচ্ছি এবং থানাকে আধুনিক ও মডেল থানা গড়তে কাজ করে যাচ্ছি ।