উলিপুরে করোনা আক্রান্তের খবর শুনে পালালেন গৃহবধু

মজাহারুল ইসলাম মিলন, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর শুনে বাবার বাড়ি পালিয়ে আসলেন এক গৃহবধু। খবরটি ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় প্রশাসন ওই নারীর বাবার বাড়ি গিয়ে বাড়িটি লকডাউন ঘোষনা করেন। ঘটনাটি ঘটেছে, রবিবার দুপুরে কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের ওলামাগঞ্জ গ্রামে।

জানা গেছে, গত ১২ মে গার্মেন্টস কর্মী চট্রগ্রাম থেকে স্বামী বাড়ি উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ফকিরপাড়া গ্রামে আসেন। এরপর তার শরীরে করোনা উপসর্গ জ্বর, সর্দি, কাশি দেখা দিলে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ গত ২৭ মে উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নে তার স্বামীর বাড়িতে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করেন। গত শনিবার রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব থেকে কোভিড-১৯ পজেটিভ রির্পোট আসলে রাতেই সে চট্রগামের উদ্যোশ্যে রওনা দেন।

এ খবর প্রশাসনের কাছে পৌঁছিলে ওই মহিলার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে জানা যায়, সে এখন বাসে বগুড়ায় রয়েছে। পরে বাড়ির লোকজনের সহায়তা তাকে ফিরে আনা হয়। কিন্তু ওই গৃহবধু স্বামীর বাড়িতে না গিয়ে পালিয়ে বাবার বাড়ি উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের ওলামাগঞ্জ আসেন। রবিবার দুপুরে পুলিশ ও স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজনসহ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুর কাদের ঘটনাস্থলে গিয়ে বাড়িটি লকডাউন ঘোষনা করেন। এঘটনা জানাজানি হলে ওই গ্রামে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুর কাদের বলেন, আক্রান্ত ওই নারীর বাবার বাড়ি লকডাউন ঘোষনা করেছি। স্বাস্থ্য বিভাগকে তার বাবার বাড়ির লোকজনের নমুনা সংগ্রহ করতে বলা হয়।