উপজেলা চেয়ারম্যানের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ

সাজেদুর রহমান, নাটোর প্রতিনিধিঃ নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে উপজেলা চেয়ারম্যান এসোসিয়েশন। সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ওই কর্মসূচি পালন করা হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান এসোসিয়েশনের ব্যানারে আয়োজিত এই মানববন্ধন কর্মসুচীতে উপজেলার সর্বস্তরের হাজারো নারী পুুরুষ অংশ নেন। তারা স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস বিরোধী প্লেকার্ড, ব্যানার, ফেস্টুন হাতে মিছিল করেন। প্রথমে পৌর সদরের চাঁচকৈড় বাজার থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়। পরে চাঁচকৈড় থেকে গুরুদাসপুর পৌরসভা পর্যন্ত দীর্ঘ এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে সমাবেশ করেন এসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দ।

হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এর আগেও উপজেলা চেয়ারম্যান এসোসিয়েশন কলম বিরতি ও কালো ব্যাজ ধারণ করে ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছিল। ইতিপুর্বে উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের ওপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগ। দলীয় সূত্র জানায়, ৫ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার দুপুরে উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের কালিবাড়ি রায়পুর গ্রামে পুকুর খনন সংক্রান্ত সালিশি বৈঠকে চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনকে স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস সমর্থকরা মারধর করে।

চেয়াম্যানের দুলাভাই আব্দুল মান্নান বাদি হয়ে সাংসদ সমর্থক ৯ জনকে অভিযুক্ত করে গুরুদাসপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।  হামলার শিকার আনোয়ার হোসেন বলেন, উপজেলার রায়পুর গ্রামে পুকুর খননকে কেন্দ্র করে সালিশি বৈঠকে সাংসদ কুদ্দুসের মদদে সবুর মিয়াসহ বেশ কয়েকজন তাকে মারধর করেন।  গুরুদাসপুর পৌরসভার মেয়র উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহনেওয়াজ বলেন,

পৌর নির্বাচনে নৌকার ভোট করায় সাংসদ কুদ্দুস উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ওই হামলা চালান। বিদ্রোহীর প্রার্থীর পক্ষ নিয়ে পরাজিত হয়ে সাংসদ এসব কর্মকান্ড চালাচ্ছেন। সমাবেশে হামলার ঘটনায় প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ উপজেলা চেয়ারম্যান এসোসিয়েশন নাটোর জেলা শাখার সভাপতি ও লালপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ইসাহক আলী, সাধারণ সম্পাদক সিংড়া উপজেলা চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক,

বড়াইগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, হামলার শিকার গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, গুরুদাসপুর পৌরসভার মেয়র উপজেলা আথলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ আলী, জেলা আথলীগের যুগ্ম সম্পাদক সরকার এমদাদুল হক, গুরুদাসপুর পৌর আথলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম প্রমূখ।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এঘটনায় আসামিরা জামিনে মুক্ত আছেন। তবে উপজেলা চেয়ারম্যানসহ জননিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস সাংবাদিকদের  বলেন, তিনি এই ঘটনার সাথে কোনভাবেই সম্পৃক্ত নন। তার সুনাম ক্ষুন্ন করতে তাকে জড়িয়ে এই মিথ্যাচার করা হচ্ছে।