উদ্ধারের ৩ মাস পর আখাউড়ায় স্বাধীনতার সময়কার মর্টার শেল নিস্ক্রিয় করা হয়েছে

জহিরুল ইসলাম সাগর, আখাউড়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় (১১ ই জুন) বৃহস্পতিবার দুপুরে দক্ষিণ ইউনিয়নের সাতপাড়া হেলিপেড মাঠের পাশে মর্টার শেলটি নিষ্ক্রিয় করে সেনাবাহিনীর বোমা নিষ্ক্রিয়কারী একটি দল। এ সময় বিস্ফোরণের শব্দে পুরো এলাকার মাটি কেপে উঠে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ১৮ ই মার্চ আখাউড়া আব্দুল্লাহপুর মো: রিপন হোসেনের বাড়িতে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩০ কেজি ওজনের মর্টার শেলটি উদ্ধার হয়। পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে পরিত্যক্ত মর্টার শেলটি উদ্ধার করা হয়। পরে বিগত ৩ মাস ধরে স্থানীয় একজন গ্রাম পুলিশের পাহারায় শেলটি নিরাপদ স্থানে রাখা হয়। আজ বৃহস্পতিবার, কুমিল্লা সেনানিবাসের মেজর ফাহমিদা সিদ্দিকী এর নেতৃত্ব ১১ সদস্য বিশিষ্ঠ বোমা নিষ্ক্রিয় করণ একটি দল শেলটি কে ধব্বংস করে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আখাউড়া থানার অফিসার ইনর্চাজ রসুল আহমদ নিজামী। একাত্তরের মুক্তিযোদ্ধের পূর্বাঞ্চলের প্রবেশদ্বার নামে খ্যাত আখাউড়ায় মুক্তিবাহিনী ও ভারতীয় মিত্র বাহিনীর সঙ্গে পাকিস্তানি সেনাদের বারবার সম্মুখযুদ্ধ হয়েছিল। নিষ্ক্রিয় করা মর্টারটি যুদ্ধের সময় ওই এলাকায় ব্যবহারের জন্য আনা হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্বাধীনতার পর থেকে এই ধরনের অসংখ্য পরিত্যক্ত মর্টার শেল ধব্বংস করা হয়েছে।