ইরাকে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত ২৫

ইরাকে আধাসামরিক বাহিনী হাশদ আশ-শাবির অন্তত পাঁচটি ঘাঁটিতে বিমান হামলা চালিয়েছে মার্কিন সেনারা। এতে অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া অন্তত ৫১ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। রোববার (২৯ ডিসেম্বর)  ইরাক ও সিরিয়ার সীমান্তবর্তী এলাকায় ড্রোন ব্যবহার করে এ হামলা চালায় মার্কিন বাহিনী। 

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগন এক বিবৃতিতে এ কথার সত্যতা নিশ্চিত করেছে যে, তারা হাশদ আশ-শাবির সঙ্গে সংশ্লিস্ট হিজবুল্লাহর কয়েকটি অবস্থানে বিমান হামলা চালিয়েছে। এ হামলার জের ধরে ইরাকের সবগুলো মার্কিন ঘাঁটিকে সর্বোচ্চ প্রস্তুত অবস্থায় রাখা হয়েছে।

এদিকে হাশদ আশ-শাবির শীর্ষস্থানীয় নেতা জাওয়াদ কাজেম রাবিয়াভি গতরাতে মার্কিন হামলা সম্পর্কে জানিয়েছেন, পশ্চিম ইরাকের আল-আনবার প্রদেশের আল-কায়েম শহরে হিজবুল্লাহর কয়েকটি ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে আমেরিকা।

ইরাকের প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহ ও প্রধানমন্ত্রী আদেল আব্দুল-মাহদি সে দেশের আধাসামরিক বাহিনীর ঘাঁটিতে মার্কিন হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, এ হামলার মাধ্যমে ইরাকের সার্বভৌমত্বের প্রতি আঘাত হেনেছে আমেরিকা।

এদিকে ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল কার্য মার্কিন বিমান হামলাকে স্বাগত জানিয়ে একে মধ্যপ্রাচ্যের চলমান ঘটনাপ্রবাহে একটি গুরুত্বপূর্ণ সন্ধিক্ষণ বলে বর্ণনা করেছেন।