ইরাকের বিরুদ্ধে নজিরবিহীন নিষেধাজ্ঞার হুমকি ট্রাম্পের

ইরাক জোরপূর্বকভাবে সে দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের বের করে দিলে প্রতিশোধ হিসেবে ‘নজিরবিহীন’ নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার মে. জেনারেল কাসেম সোলেমানিকে ইরাকে হামলা চালিয়ে হত্যার জেরে দেশটির পার্লামেন্ট বিদেশি সেনাদের বের করে দিতে একটি রেজ্যুলেশন পাস করে। এরপরই রোববার (০৫ জানুয়ারি) ট্রাম্প ইরাকের ওপর নজিরবিহীন নিষেধাজ্ঞার হুমকি দিলেন। তুরস্কের বার্তা সংস্থা আনাদুলু এজেন্সি এ তথ্য জানায়।

ট্রাম্প বলেন, যদি ইরাকের সরকার দেশটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের জোরপূর্বকভাবে বের করে দেয় তবে তারা এমন ‘নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হবে যা কখনোই দেখেনি’।

‘ইরাকে আমাদের অস্বাভাবিক ব্যয়বহুল বিমান ঘাঁটি রয়েছে। এটার জন্য বিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে। যদি তারা আমাদের এ টাকা না দেয় তবে আমরা সেখান থেকে সরে আসবো না।’

ট্রাম্প ইরাকে থাকা কোন বিমান ঘাঁটির কথা বলেছেন তা স্পষ্ট করেননি।

ধারণা করা হচ্ছে, ইরাকের আনবার প্রদেশের আল আসাদ বিমান ঘাঁটির কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের এ প্রেসিডেন্ট। এটি ইরাক এবং যুক্তরাষ্ট্র যৌথভাবে পরিচালনা করে।

ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র এ রেজ্যুলেশনের বিষয়ে হতাশা ব্যক্ত করে বাগদাদের কাছে তা পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছে।