ইউনিয়নে পারিবারিক কলহে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে গুরুতর আহত ৪ জন

রফিকুল ইসলাম, রাজিবপুর, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: পারিবারিক কলহের জের ধরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর ৪জন সহ আহত হয়েছে ৬জন।  জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার ডাংধরা ইউনিয়নের উত্তর জোয়ানের চর গ্রামে এই সংঘর্ষ হয়। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উত্তর জোয়ানের চর গ্রামের বিশিষ্ট গরম্ন ব্যবসায়ী শরিফ উদ্দিনের ভাগিনা সহিজল ইসলামের সাথে ৪ বছর আগে বিয়ে হয় একই গ্রামের রফিকুল ইসলামের কন্যা আকলিমা খাতুনের সাথে।

গত ১২ অক্টোবর সহিজল ও তার স্ত্রী আকলিমার সাথে মনোমালিণ্যতার কারণে আকলিমা তার বাবার বাড়ী চলে যায়। দু’পক্ষের বাড়ী পার্শ্ববতী হওয়ায় তাদের মধ্যে কথা কাটা-কাটিও হয়। ১৫ অক্টোবর সহিজলের মামা গরু ব্যবসায়ী শরিফ উদ্দিন বিল পাড়া গ্রামে গরু ক্রয়ের উদ্দ্যেশে ৩ লক্ষাধিক টাকা নিয়ে আকলিমাদের বাড়ীর সামনের রাস্তা দিয়ে যাইতে আকলিমার পরিবারের লোকজন তার রাস্তা অবরোধ করে। এক পর্যায়ে তাকে টেনে-হিচরে বাড়ীর ভিতর নিয়ে গিয়ে মারপিট করে এবং তার সঙ্গে থাকা টাকা গুলো ছিনিয়ে নেয়।

শরিফের চিৎকারে ভাগিনা সহিজল ঘটণাস্থলে এগিয়ে আসলে তাকেও এলোপাথারী মারপিট করে। একইভাবে সহিজলের বাবা আমজাদ (৫০), মা আইভান নেছা (৪৬), বোন আছাভানু (৩২), শরিফের স্ত্রী ছায়রাকে (৪৮) দেশীয় অস্ত্র দা, বটি, লাঠি, লোহার রট দিয়ে মারপিট করে গুরুতর আহত করে। পরে গ্রামবাসী তাদের উদ্ধার করে দ্রুত কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ারয় চিকিৎসা দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ শাফিউল ইসলাম সাজিব।

শরিফ উদ্দিন ও তার শাশুরীর অবস্থা আশঙ্কা জনক। এ ঘটণায় শরিফ উদ্দন বাদী হয়ে আমির হোসন (৩০), আতোয়ার রহমান (২৮), মোঃ আনিছ (২৫) আরিফ (২২), নুর ইসলাম (৫০) রম্নবেল মিয়া (৩০), সোহেল মিয়া এবং ওমেলা বেগম (৫০) এই ৮জনকে আসামী করে দেওয়ানগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।