আশুলিয়া ও ধামরাই থেকে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের নারীসহ ৫ সদস্য আটক

ঢাকা জেলার সাভারের আশুলিয়া ও ধামরাই থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের এক নারীসহ ৫ সদস্যকে আটক করা হয়। এসময় তাদের নিকট থেকে বেশ কিছু উগ্রবাদী বই, লিফলেট, ও ডিজিটাল কন্টেন্ট উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে আশুলিয়া কাঠগড়া ও ধামরাই থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক জঙ্গি সদস্যরা হলেন- ঝালকাঠি জেলার অলিউল ইসলাম সম্রাট (২৩), গোপালগঞ্জ জেলার মোয়াজ্জিম মিয়া শিহাদ (২০), দিনাজপুর জেলার সবুজ হোসেন আব্দুল্লাহ (২৬), চাঁদপুর জেলার আরিফুল হক আরিফ (২০) ও ঢাকা জেলার রাশিদা হুমায়রা (৩৩)।

র‌্যাব-৪ মিরপুর শাখার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সাজেদুল ইসলাম সজল জানান, আটক জঙ্গি সদস্যরা দেশের প্রচলিত শাসন ব্যবস্থার পরিবর্তে ইসলামের নামে তারা উগ্রবাদ ছড়িয়ে আসছিল। উগ্রবাদী সংবাদ, ব্লগ ও এতে উৎসাহ সৃষ্টি করে এমন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করতো।

এছাড়া নতুন জঙ্গি সদস্য সংগ্রহ করতে তাদের ৮-১০ জনের একটি গ্রুপ দেশের বিভিন্ন জেলায় গোপন বৈঠক করে আসছিল। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতেও তারা আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় গোপন বৈঠকের সংবাদ পায় র্যাব। পরে গভীর রাত থেকে ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে চার জনকে আটক করলেও বেশ কয়েকজন পালিয়ে যায়।

আটকদের দেওয়া তথ্য মতে পরে ধামরাই থেকে ওই নারীকে জঙ্গি সদস্যকে আটক করা হয়। তিনি আরো বলেন, আটক জঙ্গি সদস্যরা টার্গেট কিলিং মিশনে অংশ নিয়ে থাকে এন্ড্রয়েড মোবাইল ও ল্যাপটপের মাধ্যমে প্রটেক্টিভ অ্যাপস ব্যবহার করে তারা এসব কাজ সম্পন্ন করতো। এঘটনায় পলাতক বাকী জঙ্গি সদস্যদেরও আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।