আশুলিয়ায় অভিনব কায়দায় ভাড়াটিয়াদের সর্বস্ব লুটের অভিযোগ

মৃদুল ধর ভাবন, আশুলয়িা প্রতনিধি :শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ার মধ্যগাজীরচট দরগাড়পাড় এলাকায় অভিনব কায়দায় এক ভাড়াটিয়া অন্য ভাড়াটিয়াদের চেতনানাশক ঔষধ মিশিয়ে কৌশলে সুযোগ বুঝে মিষ্টি ও সুস্বাদু পায়েস খাইয়ে প্রায় ১০-১২টি পরিবারের সর্বস্ব লুটকরে জুয়েল দম্পতি পলাতক বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভুগি ভাড়াটিয়ারা।

মিষ্টি ও পায়েস খেয়ে শিশুসহ প্রায় ১৫জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গতকাল রাতে আশুলিয়ার মধ্য গাজীরচট (দরগারপাড়)এলাকায় (চাঁনমিয়া-হাজেরা খাতুনের)মালিকানাধীন তিনতলা বাড়ীর নীচতলা ও দোতলায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত জুয়েল দম্পতি পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন ভুক্তভুগি বাড়ীওয়ালাও।

স্থানীয়রা জানান, গত এক সপ্তাহআগে পোশাক কারখানায় চাকুরীর কথা বলে জুয়েল দম্পতি এই বাসা ভাড়া নেন,তারপর এই ঘটনা ঘটিয়ে শটকে পড়েন।বাড়ীওয়ালা এই দম্পতির তথ্য ফরম পূরণ না করে বাসা ভাড়া দেন।এতে করে বাড়ীওয়ালা বা অন্য কেউ পলাতক দম্পতির কোন তথ্য দিতে পারেননি। আবাসিক এলাকায় এ ধরণের ঘটনা ঘটায় স্থানীয়দের মাঝে হতাশা ও ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এধরণের ঘটনা ঘটায় স্থানীয়রা প্রশাসনের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।এ বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে আশুলিয়া থানার ওসি (তদন্দ) জাভেদ মাসুদ বলেন,অপরাধীদের ধরতে অভিযান চলছে।