আশুগঞ্জে ক্রিকেটের বল আনতে গিয়ে মেঘনা নদীতে তলিয়ে গেছে কিশোর

বাবুল সিকদার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার মেঘনা নদীতে শুক্রবার সকালে ক্রিকেট খেলার বল উদ্বার করতে গিয়ে কবির হোসেন(১৫)নামে এক কিশোর পানিতে তলিয়ে গেছে।

নিখোঁজ কবির সদর উপজেলার সহিলপুর গ্রামের আবু সালেহ মিয়ার ছেলে।তারা আশুগঞ্জ উপজেলা শহরের পুরাগুদাম এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। নিখোজ কবিরের সন্ধানে স্বজনদের কান্নায় মেঘনা পাড়ের বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে।কবিরের লাশ উদ্বারে কাজ করছে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস।

প্রত্যক্ষদর্শি ও নিখোজদের পরিবার সূত্রে জানাযায় উপজেলা শহরের পুড়াগুদাম এলাকায় শুক্রবার সকালে মেঘনা নদীর পাড়ে বন্ধুদের সাথে ক্রিকেট খেলছিলেন কবির ।হঠাৎ ব্যাট আঘাতে বলটি মেঘনা নদীতে পড়ে গেলে বলটি উদ্বার করতে কবির নদীতে ঝাপ দিলে পানিতে তলিয়ে যায়।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোঃ নাজিমুল হায়দার,থানার অফিসার ইনচার্জ জাবেদ মাহমুদ ও ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার রনজিত সাহা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাশ উদ্বারের চেস্টা করছেন আশুগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস । এদিকে গত ১৪ জুলাই মেঘনা নদীতে নিখোজ জেলে হোসেন মিয়ার(৫৫) লাশ ৪দিন পর ১৮জুলাই নরসিংদি জেলায় রায়পুরা উপজেলা এলাকা থেকে উদ্বার করা হয়।

আশুগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার রনজিত সাহা ও ভৈরব নৌথানার এসআই মো.রাসেল জানান,দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সাথে সাথে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করি। পানি বেশি ও স্রোত থাকার কারণে নিখোঁজ কিশোরের উদ্ধার করা এখনও সম্ভব হয়নি। ডুবুরি দল খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধারের কাজ শুরুকরেছে।