আবার জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই গাইলেন পম্পেও

চলতি বছরের ৩রা জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ড্রোন হামলা চালিয়ে জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যা করে সন্ত্রাসী মার্কিন সেনারা।

ইরাক সরকারের আমন্ত্রণে বাগদাদে রাষ্ট্রীয় সফরে গিয়েছিলেন ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র কুদস ফোর্সের তৎকালীন কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানি।

পম্পেও মার্কিন টিভি চ্যানেল ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ইরান ও জেনারেল সোলাইমানির বিরুদ্ধে আমেরিকার আগের অভিযোগগুলোর পুনরাবৃত্তি করে তাকে হত্যা করাকে ‘অত্যন্ত ভালো পদক্ষেপ’ বলে মন্তব্য করেন।

এর আগেও এক বক্তব্যে পম্পেও জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনাকে ‘সাহসী পদক্ষেপ’ হিসেবে বর্ণনা করে বলেছিলেন, ইরানি এই জেনারেলকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয়ার ঘটনায় তিনি ভূমিকা রেখেছেন।

সন্ত্রাসী মার্কিন সেনাদের ড্রোন হামলায় জেনারেল সোলাইমানি শহীদ হওয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রকাশ্যে ঘোষণা করেছিলেন, তার সরাসরি নির্দেশে এই বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। আইআরজিসি’র কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি রোববার হুমকি দিয়ে বলেছেন, জেনারেল সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ অবশ্যই নেবে তেহরান।