আন্তর্জাতিক আদালতের মুখোমুখি মিয়ানমার: বিচার শুরু আজ; থাকবেন সুচি

রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে গাম্বিয়ার করা মামলায় মিয়ানমারের বিচার শুরু হচ্ছে আজ। দুপুরে নেদারল্যান্ডসের হেগে আন্তর্জাতিক আদালতে প্রথম শুনানি হবে। আর এ মামলায় আদালতে হাজির হবেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচিও। মিয়ানমারকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা হলে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন দ্রুত শুরু করা সম্ভব বলে মনে করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী । মামলার পর্যবেক্ষণে থাকবেন বাংলাদেশের প্রতিনিধিরাও। মামলার কার্যক্রম চলবে টানা তিন দিন পর্যন্ত। নেদারল্যান্ডসের হেগে পিস প্যালেসে শুরু হচ্ছে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানি। প্রথম দিন বক্তব্য রাখবে মামলার বাদি গাম্বিয়া। অংশ নিচ্ছেন দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল ও আইনমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু।
শুনানিতে মিয়ানমারের পক্ষে থাকছেন দেশটির স্টেট কাউন্সিলর অং সান সুচি। তারা বক্তব্য রাখবে ১১ ডিসেম্বর। দুই পক্ষই সময় পাবে তিন ঘণ্টা করে। দুদেশের পাশাপাশি বাংলাদেশ ও কানাডার প্রতিনিধিরাও থাকছেন পিস প্যালেসে।

উল্লেখ্য, এ ধরনের মামলার রায় দিতে কয়েক বছর সময় নেয় আইসিজে। তবে অন্তর্বর্তীকালীন ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দিতে সময় নেয় কয়েক সপ্তাহ। এক্ষেত্রে আদালতের রায়ই চূড়ান্ত, আপিলের কোন সুযোগ নেই। কিন্তু নির্দেশ মানতে রাষ্ট্রকে বাধ্য করার ক্ষমতা নেই এই আদালতের।