আটক কচুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির গুরুতর অসুস্থ কুমিল্লা বা ঢাকা নেওয়ার পরামর্শ চিকিৎসকের

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাজাহান শিশির ৩টি মামলায় আটক হয়ে বর্তমানে জেলহাজতে রয়েছেন। কারা অভ্যন্তরে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বুধবার সকাল ১১টায় তাকে কারাগার থেকে চাঁদপুর ২৫০ শয্যার সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়।

এ সময় চিকিৎসক তার শারীরিক অবস্থার কথা জানতে পেরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা অথবা ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার জন্য কারা কর্তৃপক্ষকে বলেছেন। শাহজাহান শিশিরের বিরুদ্ধে চাঁদপুর মডেল থানায় ও কচুয়া থানায় এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা ৩টিতে তিনি বর্তমানে চাঁদপুর কারাগারে রয়েছেন। চাঁদপুর পৌরসভার ১৫নং ওয়ার্ড বিটি রোড এলাকার মোঃ রফিকুল ইসলাম স্বাধীন চলতি বছরের ২২ জুন চাঁদপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

১৯ জুন কচুয়া শিক্ষা উপ-সহকারি প্রকৌশলীকে মারধরের ঘটনায় কচুয়া থানার পুলিশ কর্মকর্তা নূরে আলম বাদী হয়ে শাহজাহান শিশির সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় শাহজাহান শিশির উচ্চ আদালত থেকে জামিনে রয়েছেন। ৬ অক্টোবর শাহজাহান শিশির ডিজিটাল নিরাপত্তা মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন ৮ সপ্তাহের জন্য জামিন নেন। রাষ্ট্রপক্ষ ১১ অক্টোবর ৮ সপ্তাহের জামিন আদেশ স্থগিত করেন। এসব মামলায় শাহজাহান শিশির চাঁদপুর জেলা কারাগারে রয়েছেন।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আসিবুল ইসলাম আসিবের কাছে তাকে নিয়ে আসলে তিনি শাহজাহান শিশিরের শারীরিক অবস্থা জানতে পেরে তাকে সার্জিকেল চিকিৎসক ডাঃ মনিরুল ইসলামের কাছে প্রেরণ করেন। ডাঃ আসিবুল ইসলাম আসিব জানান চেয়ারম্যান শাহজাহান শিমির ব্রেন ক্যান্সার ও পিত্তথলিতে পাথরে আক্রান্ত ছিলেন, গত কয়েক মাস পূর্বে অপারেশন করেছেন। এছাড়া তিনি ডায়াবেটিস রোগেও আক্রান্ত।

বর্তমানে তিনি কানে কম শুনতে পারছেন। এসব রোগের চিকিৎসা চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে না থাকায় আমরা কারা কর্তৃপক্ষকে বলেছি শাহজাহান শিশিরকে কুমিল্লা অথবা ঢাকার নিউরোলজি বিভাগে চিকিৎসা করানোর জন্য নিয়ে যেতে। পরে কারাকর্তৃপক্ষ তাকে হাসপাতাল থেকে পুনরায় কারাগারে নিয়ে যায়।