আজ বসুন্ধরা কিংসের প্রতিপক্ষ মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস

প্রথমবারের মতো এশিয়ার ক্লাব ফুটবল শ্রেষ্ঠত্বের আসরে মাঠে নামছে বাংলাদেশ লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। প্রতিপক্ষ মালদ্বীপের ক্লাব টিসি স্পোর্টস। আগের দুই আসরে বাংলাদেশ সফরে আবাহনীর বিপক্ষে জয়ের সুখস্মৃতিই আত্মবিশ্বাস দিচ্ছে মালদ্বীপের ক্লাবটিকে। অন্যদিকে, এএফসি কাপে নিজেদের যাত্রাটা জয় দিয়ে রাঙ্গাতে চায় স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশে এসে প্রথমবার অনুশীলনে মালদ্বীপের ক্লাব টিসি স্পোর্টস। লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ক্লাবটি জায়গা করেছে এএফসি কাপে। দ্বীপ দেশটির শিবিরে রয়েছেন মিশর, পাকিস্তান আর সেন্ট ভিনসেন্টের ফুটবলার। আছে জাতীয় দলের ৫ জন। শক্তি বাড়িয়েছে মালদ্বীপের তারকা ফুটবলার আশফাক।

টিসি স্পোর্টসের কোচ মোহাম্মদ সাজলি বলেন, গেলো ডিসেম্বর থেকে আমরা এএফসি কাপের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। বসুন্ধরা অনেক শক্ত প্রতিপক্ষ। তাছাড়া ম্যাচটা ওদের মাঠে। আমাদের দলে আশফাক যোগ দিয়েছেন। অন্যরাও ভাল ছন্দে আছে। আশা করি দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।

বসুন্ধরা কিংস ঘরোয়া ফুটবলে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। পেশাদারিত্বের প্রমাণ দিয়েছে। দেশের মাটিতে ফলও পেয়েছে। এবার মঞ্চটা বৈশ্বিক।

এএফসি কাপ নিয়ে বসুন্ধরার স্বপ্নটা শুরু থেকেই। এবার তারা দলে ভীড়িয়েছে মেসির সতীর্থ আর্জেন্টাইন হার্নান বার্কোসকে। সাথে আছেন বিশ্বকাপ খেলা ডেনিয়েল কলিন্দ্রেস। এই দুই তারকাকে নিয়ে স্বপ্নবাজ কিংস।

বসুন্ধরা কিংসের ডিফেন্ডার তপু বর্মন বলেন, সব খেলোয়াড়ই খুব সতেজ এবং দেশের মাটিতে প্রথম ম্যাচ। আমরা অবশ্যই চেষ্টা করবো ভালো কিছু করার।

ফর্মমেশনটা অস্কার ব্রুজনের ৪-৪-২ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। একাদশটা অনুমান করা যায় অনুশীলনে। ডিফেন্সের তপু, ইয়াসিন সাথে বিশ্বনাথ, ফয়সাল, মাঝ মাঠে বিপলু, ইব্রাহিম আর স্কোরিংয়ের দায়িত্বে বার্কোস, কলিন্দ্রেস। তাই তাদের নিয়ে বাড়তি মনযোগী ব্রুজন।

বসুন্ধরা কিংসের কোচ অস্কার ব্রুজেন বলেন, কাউন্টার অ্যাটাক আর সেট পিসে আমরা দুর্বল। ফিনিশিংয়ের দুর্বলতা দূর করবে হার্নান বাকোর্স। টিসি স্পোর্টসের খেলা আমরা দেখেছি। আশা করি পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পারলে জয় আমরাই পাবো।

নিজেদের লিগে গেলো ম্যাচে মোহামেডানের বিপক্ষে হেরেছে বসুন্ধরা কিংস।