আজ আরো ৩৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে

সম্প্রতি দেশের পেঁয়াজের বাজার অস্থির হয়ে যাওয়ায় স্বল্প আয়ের মানুষদের খুব বিপাকে পড়তে হয়। আর এর প্রভাব পড়ে মানুষের স্বাভাবিক জীবনে। আর পেয়াজ আমদানিকারকরা কেউ মজুদদারি করে অতি মুনাফা লাভের আশায় এমন পরিস্থিতি তৈরী করেছে কী না তার তদন্তের অংশ হিসেবে আজ আরো ৩৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কাস্টমস গোয়েন্দা। সোমবার তদন্তের প্রথম দিনে ১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এসময় আমদানিকারকরা জানান, কেউ কারসাজি করেনি বরং ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি নিষিদ্ধ করার পর থেকে সরবরাহের ঘাটতি থাকার কারণেও পেঁয়াজের দাম বাড়ছে। প্রতিদিন পাঁচ থেকে ছয় হাজার টন পেঁয়াজ সরবরাহের ঘাটতি বলে দাবি করেন তারা।

আমদানিকারকদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় আমদানিকারকরা তাদের আমদানি ও বিক্রির তথ্য জমা দেন।কাস্টমস গোয়েন্দার হিসাবে গত সাড়ে তিন মাসে এক লাখ ৬৮ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করেছে ৩৪১ জন ব্যবসায়ী।