আগুনে সর্বশান্ত থানচি ব্যবসায়ীরা

রানা মারমা, বান্দরবান প্রতিনিধিঃ বান্দরবান জেলার থানচি উপজেলার প্রধান বাজারে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সর্বশান্ত হয়েছে বাজারের ব্যবসায়ীরা।আগুনের ঘটনায় পুরো বাজার জ্বলে শেষ হওয়ার কারনে যেন পথে বসেছে তারা।অন্তত তিন শতাধিক দোকান ও ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
আজ  এই অগ্নাকান্ডের ঘটনা ঘটে।তবে কিভাবে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছেতা প্রাথমিক ভাবে জানা সম্ভব হয়নি। ধারনা করা হচ্ছে,থানচি বাজারের কোন দোকানের চুলা থেকে আগ্নিকান্ডের সুচনা হতে পারে। একটি দোকান থেকে আগুনের সুত্রপাত হলে একে একে থানচি বাজারে অবস্থিত দোকান ও বসতবাড়ি সব গুলো পুড়ে যায়। এসময় অধিকাংশ মানুষ ঘুমের মধ্যে থাকায় তারা কোন ভাবে দোকান ও ঘর থেকে প্রাণ নিয়ে বের হন।দোকান ও ঘর থেকে কোন কিছু বের করতে পারেনি বলে জানা গেছে।
এতে অন্তত ১০-১২ কোটির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।  বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা আগুন লাগার ঘটনার নিশ্চিত করে বলেন আগুন নিয়ন্ত্রনের জন্য স্হানীয়রা কাজ করেছে,তাদের পাশাপাশি বান্দরবান থেকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের পাঠানো হয়, আড়াই ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।
এদিকে ঘটনার পর থানচি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান থোয়াইহ্লামং মারমা, থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল হক মৃদুল,লেফট্যানেন্ট কর্ণেল সানবীর হাসান মজুমদারসহ ঘটনারস্হল পরিদর্শন করেন। প্রসঙ্গত স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে ৪বার থানচি বাজার পুড়ে যায়।১৯৮৪ সালে প্রথমবার,১৯৯৮,২০০৬, ২৭এপ্রিল চতুর্থ বারের মতো থানচি বাজার পুড়ে যায়।