আখাউড়া উপজেলা যুবলীগের পরিচ্ছন্নতায় হাসপাতাল

জহিরুল ইসলাম সাগর, আখাউড়া প্রতিনিধিঃ  কোভিড ১৯ রোগের মহামারীর এই সময়েও আখাউড়া উপজেলা যুবলীগ পরিচ্ছন্নতায় নেমেছে মাঠে। আজ সোমবার সকালে হাসপাতালের আশপাশ পরিষ্কার করা সহ ভিতরে প্রয়োজনীয় কিছু বেড কাভার, ফ্যান, বাল্ব পরির্তন করে দিয়েছে তারা। দুই ঘন্টায় বদলে দিয়েছে হাসপাতালের পরিবেশ। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও পৌর মেয়র মো. তাকজিল খলিফা কাজলের নেতৃত্বে অর্ধশত নেতা-কর্মী সকাল সোয়া ১০টার দিকে পরিচ্ছন্নতার কাজে নামেন।

প্রথমেই তারা রোগীদের ওয়ার্ডের ফ্লোর ও টয়লেট পরিস্কার করেন। সেখানে ২৪ টি নতুন বিছানার চাদর, তিনটি সিলিং ফ্যান ও ১৫ টি নতুন লাইট নেয়া হয়। পরে হাসপাতালের নতুন ভবন ও আশেপাশেও পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হয়। এতে অংশ নেয় জেলা পরিষদ সদস্য মো. আতাউর রহমান নাজিম, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. আব্দুল মমিন বাবুল, দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জালাল উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য দীপক কুমার ঘোষ, পৌর যুবলীগের সভাপতি মো. মনির খান, সাধারন সম্পাদক আবু কাউছার ভূঁইয়া, মো. জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

এ সময় হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রাশেদুর রহমান, আবাসিক মেডিকেল অফিসার শ্যামল কুমার ভৌমিকসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল মমিন বাবুল বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের নির্দেশে সবাই খুব আন্তরিকভাবে এ কাজে অংশ নিয়েছেন। প্রতি মাসেই যুবলীগের উদ্যোগে এটা করা যায় কি না বিষয়ে আমরা চিন্তাভাবনা করছি। পৌর যুবলীগের সভাপতা মোঃ মনির খান জানান, সাধারণ মানুষজনের বড় অংশই সরকারের এই সময়ের নির্দেশ মান্য করে চলছে।

কিছু মানুষের অসচেতনতায় আমাদের প্রিয় আখাউড়াতেও করোনা ভাইরাসের প্রভাব রয়েছে। আইনমন্ত্রীর নির্দেশে করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই আমরা মানুষের সেবা করে যাচ্ছি। এরই অংশ হিসেবে আমাদের এ ধরণের উদ্যোগ। আমরা এটা অব্যাহত রাখবো আশা করি। উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও পৌর মেয়র মো. তাকজিল খলিফা কাজল বলেন, মূলত মন্ত্রী মহোদয়ই এ বিষয়ে আমাদেরকে নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই মোতাবেক আমরা কাজ করেছি। এখন থেকে প্রতি মাসেই হাসপাতালে পরিচ্ছন্নতার কাজটি করবে যুবলীগ।