অ্যান্টিগায় প্রথম টেস্টের পর দ্বিতীয় টেস্টেও ড্র

অ্যান্টিগায় প্রথম টেস্টের পর দ্বিতীয় টেস্টের ভাগ্যেও জুটলো ড্র। পাঁচদিন ধরে লড়াই করার পরও ওয়েস্ট ইন্ডিজ-শ্রীলংকার দুই টেস্ট সিরিজ রয়ে গেলো অমীমাংসিত।

৩৭৭ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে লঙ্কানরা ওপেনার-অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে ও ওশাদা ফার্নান্দোর ফিফটিতে দ্বিতীয় ইনিংসে করে ১৯৩ রান।

চোটের কারণে শ্যানন গ্যাব্রিয়েলকে ছাড়া পঞ্চম ও শেষদিনে বোলিংয়ে মাত্র সফরকারীদের ২ উইকেট নিতে পারে উইন্ডিজ। শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংসে করে ২৫৮ রান।

এর আগে ওপেনার-অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রাথওয়েট ও কাইল মায়ার্সের ফিফটিতে ৪ উইকেটে ২৮০ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে ক্যারিবিয়ানরা।

প্রথম ইনিংসেও দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটিংয়ে সেঞ্চুরি করে দলকে ৩৫৪ রান এনে দেন ব্রাথওয়েট।

২৯ রানে শেষদিন শুরু করেন দুই লঙ্কান ওপেনার লাহিরু থিরিমান্নে ও করুনারত্নে।

দ্বিতীয় টেস্টের শুরু থেকে ধীরগতির ব্যাটিং দেখিয়েছে দু’দল। শেষদিনে তারই ধারাবাহিকতা বজায় রাখলো লঙ্কানরা।

দলীয় তাদের ২৩২ বলে ১০১ রানের ওপেনিং জুটি ভাঙেন আলঝেরি জোসেফ। ১১৪ বলে ৩৯ রান করে ফেরেন থিরিমান্নে।

এরপর স্কোরবোর্ডে আর ৪৫ রান জমা পড়তেই কাইল মায়ার্সের বলে এলবিডব্লিউর শিকার হন আরেক ওপেনার করুনারত্নে।

লঙ্কান অধিনায়কের ১৭৬ বলে ৭৫ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৯ চারে। এরপর অবশ্য আর কোনো সুবিধা করতে পারেনি ক্যারিবিয়ানর।

দিনেশ চান্দিমালের সঙ্গে ক্রিজে মাটি কামড়ে পড়ে থেকে দলকে ড্র এনে দেন ফার্নান্দো।

তার অপরাজিত ৬৬ রানের ইনিংসটি এসেছে ১১৯ বলে। ৬৬ বল মোকাবেলা করে ১০ রানে অপরাজিত ছিলেন চান্দিমাল।

দুই ইনিংসে রানের বন্যা বইয়ে দিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন ব্রাথওয়েট। সিরিজ সেরা হয়েছেন সুরঙ্গা লাকমল।