অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান শুরুর ঘোষণা মালয়েশিয়া সরকারের

মালয়েশিয়া সরকারের দেয়া ‘ব্যাক ফর গুড’ কর্মসূচি শেষ হয়েছে ২০১৯ সালের ৩১শে ডিসেম্বর। ১লা আগষ্ট থেকে শুরু হওয়া সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নিয়ে নির্ধারিত সময়ে মালয়েশিয়া ত্যাগ করেছে বাংলাদেশিসহ ১ লাখ ৮৭ হাজার ৩শ ৯জন। যার মধ্যে প্রথম অবস্থানে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া, দ্বিতীয় অবস্থানে বাংলাদেশ। এছাড়াও আছে ভারত ও মিয়ানমারসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিক।

মালয়েশিয়া সরকারের দেয়া ব্যাক ফর গুড কর্মসূচি শেষ হওয়ার পর এখন সেখানে অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসিদের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান শুরু করা হবে বলে দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত যেসব অভিবাসী অবৈধভাবে অবস্থান করছে তাদের বিরুদ্ধে অভিবাসন আইনে ২ লাখ রিঙ্গিত ও ৫ বছরের জেল অথবা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারে বলে জানান ইমিগ্রেশন বিভাগের পরিচালক।

মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন বিভাগের পরিচালক দাতুক খায়রুল দাজামি দাউদ বলেন, ‘যারা এ কর্মসূচির সুযোগ গ্রহণ না করে এখনও মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে বসবাস করছেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান শুরু করা হবে। অভিবাসন আইনে বিচার করা হবে তাদের।’

এরই ধারাবাহিকতায় নতুন বছরের পহেলা জানুয়ারি অনলাইনে জালিয়াতিতে জড়িত থাকার অভিযোগে ৮৭ জন চীনা নাগরিককে আটক করে মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন এনফোর্সমেন্ট অপারেশনের পুলিশ।

মালয়েশিয়ার যোগাযোগ ও মাল্টিমিডিয়া কমিশনসহ অন্যান্য সংস্থার সহযোগিতায় এই অভিযান চলছে। জনসাধারণ এবং বিভাগীয় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে  ৫টি আবাসিক এবং ৯টি অফিসে অভিযান চালানো হয়। এ সময় মোট  ৩৩টি ল্যাপটপ এবং ২০৩ টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। অনলাইনের মাধ্যমে মালয়েশিয়া এবং চায়নায় ডিজিটাল জালিয়াতিতে জড়িত ছিল এই চক্রটি।