অনলাইনে টিকিট কেটে ট্রেন ভ্রমণ করতে হবে: রেলমন্ত্রী

৩১ মে থেকে আট জোড়া অর্থাৎ ১৬টি ট্রেন চলাচল শুরু হবে জানিয়ে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ‘করোনা ভাইরাসের কারণে রেল ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। এখন থেকে ট্রেনের সব টিকিটই অনলাইনে বিক্রি করা হবে। কেউ টিকিট ছাড়া স্টেশন প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করতে পারবে না।’

শনিবার (৩০ মে) দুপুরে রেল ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। শনিবার থেকেই অনলাইনে টিকিট বিক্রি শুরু হবে বলে জানান তিনি।

রেলমন্ত্রী বলেন, ‘দ্বিতীয় ধাপে ৩ জুন থেকে আরও ১১ জোড়া ট্রেন চালানো হবে। ১৫ জুন পর্যন্ত গণপরিবহন ও ট্রেন চলাচলের প্রভাব সরকার পর্যবেক্ষণ করবে। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি দেখেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিমানবন্দর স্টেশন, জয়দেবপুর ও নরসিংদী স্টেশনে এখন থেকে কোনো ট্রেন থামবে না। শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে অর্ধেক আসনের টিকিট বিক্রি করা হবে। রেল যেহেতু সরকারি প্রতিষ্ঠান, তাই আপাতত কোনো ভাড়া বাড়ছে না। ট্রেনে ভ্রমণের সময় অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। শীততাপ নিয়ন্ত্রিত কেবিনে বালিশ, কাঁথা দেওয়া হবে না। তাছাড়া এসময় ট্রেনে কোনো ধরনের খাবার সরবরাহ করা হবে না।’

এসময় রেল সচিব সেলিম রেজা, রেলের মহাপরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।